যৌন কেলেঙ্কারি বিচারের মুখোমুখি হতেই হচ্ছে বেনজেমাকে!


সেক্স টেপ নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার মামলায় এর আগেও কয়েক দফা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে করিম বেনজেমাকে। এ নিয়ে পানি কম ঘোলা হয়নি। তবে শেষ পর্যন্ত এ মামলায় ফেঁসে যেতে পারেন এ রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। আগামী মঙ্গলবার এ ইস্যুতে বিচারের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন ফরাসি স্ট্রাইকার। এমন সংবাদই প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

ফরাসি প্রসিকিউটরদের সূত্র ধরেই এএফপির সংবাদে বলা হয়েছে, আগামী মঙ্গলবার বিচারের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন বেনজেমা। পাশাপাশি বেনজেমার আইনজীবী সিলভেইন কর্মিয়ারেরও উদ্ধৃতি নিয়েছে তারা। এ বিষয়ে বিচার প্রক্রিয়ায় মুখোমুখি হওয়ায় বিস্মিত হননি তারা। তবে ইস্যুটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন এ আইনজীবী।
মূল ঘটনাটি ২০১৫ সালের। একটি ম্যাচ খেলতে একসঙ্গে এক হোটেলে উঠেছিলেন তৎকালীন ফ্রান্স জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। সেখানেই সতীর্থ ম্যাথিউ ভালবুয়েনা একটি সেক্স টেপ করেন কেউ। পরে ঘটনাক্রমে সেটি হাতে চলে যায় কিছু ব্ল্যাকমেইলারদের। বড় অঙ্কের টাকাও দাবী করা হয়। অন্যথায় সেক্স টেপটি ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয় ভালবুয়েনাকে। সে বছরের জুলাইয়ে ব্ল্যাকমেইলের মামলা করা হয়। পরে সন্দেহভাজন তিন ব্ল্যাকমেইলারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। যাদের সঙ্গে বেনজেমাসহ বেশ কিছু ফুটবলারের বন্ধুত্ব রয়েছে। আটক করা হয় ভালবুয়েনার সতীর্থ জিব্রিল সিসেকেও। যদিও জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। ধারণা করা হয়, ব্ল্যাকমেলাদের সঙ্গে যোগস‚ত্র রয়েছে বেনজেমার এক আত্মীয়ের। তবে বেনজেমা জড়িত কি-না তা নিশ্চিত নয়। এ নিয়ে লম্বা সময় ধরেই তদন্ত করছে ফরাসি পুলিশ। অভিযোগ প্রমাণিত হলো পাঁচ বছর পর্যন্ত তার জেল হতে পারে বেনজেমার।
উল্লেখ্য, এর আগে ২০১০ বিশ্বকাপে যৌন কেলেঙ্কারিতে ফেঁসে গিয়েছিলেন বেনজেমা। ২০১৬ সালেও তার বিরুদ্ধে যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগ এনেছিলেন এক আর্জেন্টাইন মডেল। এ সকল কারণে ২০১৬ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের আগে জাতীয় দলে জায়গা হারান বেনজেমা। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে অসাধারণ পারফরম্যান্স করে গেলেও এখন পর্যন্ত আর জায়গা মেলেনি। আজ রাতে স্প্যানিশ লা লিগায় ওসাসুনার আতিথ্য নেবে রিয়াল। এই মামলা জনিত জটিলতার প্রভাব কিছুটা হলেও পড়তে পারে বেনজেমার পারফরম্যান্সে।

এই রকম আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.