সমালোচনা মাথা পেতে নিচ্ছেন মিসবাহ


নিউজিল্যান্ডে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হার ও টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশড হওয়ার পর দলকে তুলোধুনা করা হচ্ছে পাকিস্তানে। দলটির সাবেক তারকা শোয়েব আখতারের মতে, আন্তর্জাতিক মঞ্চে স্কুল পর্যায়ের ক্রিকেট খেলছে তারা। তার কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে আরেক সাবেক পেসার আকিব জাভেদের অভিমত, স্কুল দলের কোচ হওয়ার যোগ্যই নন মিসবাহ-উল-হক। পাকিস্তানের পারফরম্যান্স ও কোচদের নিয়ে আরও কে কী বলছেন, সেই তালিকা অনেক লম্বা। সমালোচনার এই প্রবল ঝড়কে অবশ্য যথাযথ বলেই মনে করেন পাকিস্তানের প্রধান কোচ মিসবাহ। পাল্টা জবাব না দিয়ে এসব তির্যক মন্তব্য মাথা পেতে নিচ্ছেন দেশটির সাবেক এই ক্রিকেটার।
কদিন আগে শেষ হওয়া সিরিজের প্রথম ম্যাচে লড়াই করে হেরেছিল পাকিস্তান। মাউন্ট মঙ্গানুইতে পঞ্চম দিনে ছড়িয়েছিল রোমাঞ্চ আর উত্তেজনা। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ১০১ রানে জয়ী হয় নিউজিল্যান্ড। তবে ক্রাইস্টচার্চে দ্বিতীয় টেস্টে অসহায় আত্মসমর্পণ করে সফরকারীরা। তারা ম্যাচ হারে ইনিংস ও ১৭৬ রানের বিশাল ব্যবধানে। দেশে ফেরার পর পিসিবির অডিও বার্তায় মিসবাহ দায় নিলেন ব্যর্থতার, ‘এসব সমালোচনা যৌক্তিক। এমন পারফরম্যান্সের পর সমালোচনা আমাদের প্রাপ্য। যারা সমালোচনা করছে, সবাই দলের সামর্থ্য ও সম্ভাবনায় বিশ্বাস রাখে। যখন লোকে অনেক প্রত্যাশা করে আমাদের কাছে, কিন্তু আমরা পূরণ করতে পারি না, সমালোচনা তখন হবেই।’
দুই টেস্টেই পাকিস্তান একগাদা ক্যাচ ছেড়ে সুযোগ করে দিয়েছে কিউইদের বড় স্কোর গড়ার। সহজ অনেক ক্যাচ তারা নিতে পারেনি। তাদের ফিল্ডিংয়ের করুণ দশার ফায়দা তুলে নিয়ে কিউই ব্যাটসম্যানরা ঘোরায় ছড়ি। মিসবাহর চোখে দলের ব্যর্থতার মূল কারণ এটিই, ‘আমাদের সামনে এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলো, আগেও যেটা পাকিস্তান ক্রিকেটে দেখা দেখে, ক্যাচগুলো ঠিকমতো নেওয়া। ক্যাচ ছেড়েই এই সিরিজে আমাদের সম্ভাবনায় চোট লেগেছে। দুই টেস্টে অনেক ক্যাচ হাতছাড়া করেছি আমরা। এখানে আমাদের অনেক কাজ করতে হবে।’
কাজ করার জন্য খুব বেশি সময় পাচ্ছে না পাকিস্তান। সামনেই দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে দুই টেস্ট ও তিন টি-টোয়েন্টির সিরিজ। তবে তাদের জন্য কিছুটা স্বস্তির ব্যাপার, এই সিরিজ দেশের মাটিতে। ২৬ জানুয়ারি করাচি টেস্ট দিয়ে শুরু সিরিজ।

এই রকম আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *