স্বামী বিদেশ, বুয়া সেজে অন্যের বাড়িতে চুরি করেন বিত্তশালী নারী

স্বামী থাকেন সৌদি আরব আর ছেলে থাকেন দুবাই। আছে বহুতল ভবনও। তবু পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন বুয়ার কাজ। তবে তিনি ছদ্মবেশী কাজের বুয়া। কাজ নেন বিত্তশালীদের বাড়িতে। এরপর সুযোগ বুঝে টাকা-স্বর্ণালংকারসহ নামীদামি জিনিসপত্র নিয়ে দেন চম্পট। অবশেষে ছদ্মবেশী চোর বিবি কুলসুম পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন।

তার কাছ থেকে চুরি করা ২০ ভরি স্বর্ণালংকার ও প্রায় পাঁচ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। রোববার রাতে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সিএমপির কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, ছদ্মবেশে বিবি কুলসুম চুরি করে বেড়ান। তিনি দীর্ঘদিন ধরে অভিন্ন কায়দায় চুরি করছেন। মাসখানেক আগে নগরীর ঘাটফরহাদ বেগ এলাকায় একটি চুরির ঘটনা ঘটে। ওই চুরির সূত্র ধরে কুলসুমকে গ্রেফতার করা হয়।

ভুক্তভোগীরা জানান, ছদ্মবেশে বিত্তশালীদের বাড়িতে কাজ নেন কুলসুম। নিজের পরিচয় লুকাতে ছদ্মনাম এবং অন্যের নামে রেজিস্ট্রেশন করা সিম ব্যবহার করেন। নিজের চেহারা আড়াল করতে সব সময় করেন পর্দা। সুযোগ বুঝে অভিন্ন কৌশলে চুরি করে চম্পট দেন। ৩ নভেম্বর নগরীর ঘাটফরহাদ বেগ এলাকায় চুরি করেন কুলসুম। এ সময় ৫০ ভরি স্বর্ণ ও দেড় লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যান। পরে প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ওসি বলেন, কুলসুম চুরির পর এলাকা থেকে পালিয়ে যান। গ্রামের বাড়িতে তার বহুতল ভবন রয়েছে। এলাকায় তার পরিবার বিত্তশালী হিসেবেই পরিচিত। সবাই তাকে দানবীর হিসেবে চেনেন। তার শহরেও বাড়ি রয়েছে। শহরে চুরির পর গ্রামে পালিয়ে যান। চুরি করা টাকা ও স্বর্ণালংকার মাটির নিচে পুঁতে রাখেন।

এই রকম আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *